Home কুষ্টিয়া কুষ্টিয়ায় দুই নৌকার সংঘর্ষে একজন নিখোঁজ, নদী সাঁতরে প্রাণে বেঁচে ফিরেছেন ১৭...

কুষ্টিয়ায় দুই নৌকার সংঘর্ষে একজন নিখোঁজ, নদী সাঁতরে প্রাণে বেঁচে ফিরেছেন ১৭ শ্রমিক 

311

কুষ্টিয়ায় দুই নৌকার সংঘর্ষে একজন নিখোঁজ, নদী সাঁতরে প্রাণে বেঁচে ফিরেছেন ১৭ শ্রমিক

দুই বালুবাহী নৌকার মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে।এ ঘটনায় নদী সাঁতরে প্রাণে বেঁচে ফিরেছেন আরও ১৭ শ্রমিক।এতে উবাই সরদার (৪০) নামের একজন শ্রমিক নিখোঁজ রয়েছেন।

২৬ সেপ্টেম্বর সোমবার বিকেলে উপজেলার শিলাইদহ ইউনিয়নের কোমরকান্দি এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা উপজেলার বাইশচর ইউনিয়নের দশ মাইল এলাকার জালাল সরদার ছেলে নিখোঁজ উবাই সরদার।

পাবনার সুজানগরের তারাপুর চর থেকে দুটি বালুবাহী নৌকা আগ-পাছ করে পদ্মা নদী দিয়ে কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা উপজেলার বারোমাইল ঘাটে যাচ্ছিলেন। পথে বিকেল ৪টার দিকে কুমারখালীর শিলাইদহের কোমরকান্দি এলাকায় পৌঁছালে আগের নৌকা স্রোতে উল্টে যায়। এতে উল্টে যাওয়া নৌকার সঙ্গে পেছনের নৌকার সংঘর্ষ হয়।নৌকায় থাকায় শ্রমিক ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে।

সংঘর্ষে দুই নৌকার মাঝিসহ ১৮ জন শ্রমিক পানিতে পড়ে যান। এ ঘটনায় শ্রমিক উবাই সরদার এখনো নিখোঁজ।পরে নদী সাঁতরে মাঝিসহ ১৭ জন শ্রমিক তীরে আসতে সক্ষম হন।

তারাপুর থেকে বালু নিয়ে বারোমাইল যাচ্ছিলাম। নৌকায় আমরা ১৪ জন ছিলাম। যাওয়ার পথে কোমরকান্দি এলাকায় আমাদের নৌকা স্রোতে উল্টে যায়। এ সময় অপর নৌকা এসে ধাক্কা দেয়। আমরা সবাই সাঁতরে প্রাণে বেঁচে কিনারে ফিরেছি। কিন্তু উবাই এখনো নিখোঁজ।’নৌকায় থাকা শ্রমিক আলাউদ্দিন বলেছেন।

হঠাৎ আগের নৌকা স্রোতে উল্টে গেলে আমাদের নৌকায় ধাক্কা লাগে। ধাক্কায় আমাদের নৌকাও উল্টে ডুবে যায়। আমরা চারজন ছিলাম নৌকায়। সাঁতরে সবাই তীরে চলে আসি।’অপর নৌকার শ্রমিক আমজাদ আলী বলেছেন।

নিখোঁজের বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। নিখোঁজের সত্যতা পেলে উদ্বার অভিযান চালানো হবে।কুমারখালী ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের পরিদর্শক মো. বুখতিয়ার উদ্দিন বলেছেন।

দুর্ঘটনার খবর পেয়েছি। ফায়ার সার্ভিস বিষয়টি নিয়ে কাজ করছে। কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) বিতান কুমার মন্ডল বলেছেন।