Home কুষ্টিয়া কুষ্টিয়ায় বিদ্যুৎস্পৃষ্টে লাইনম্যানের মৃত্যু

কুষ্টিয়ায় বিদ্যুৎস্পৃষ্টে লাইনম্যানের মৃত্যু

190

কুষ্টিয়ায় বিদ্যুৎস্পৃষ্টে লাইনম্যানের মৃত্যু

বিদ্যুতায়িত হয়ে কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে একজন লাইনম্যান নিহত এবং হেডমিস্ত্রী গুরুতর আহত হয়েছেন।১১ মার্চ শনিবার দুপুর দেড়টার দিকে কুষ্টিয়ার কুমারখালী পৌরসভার খোকনমোড় এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

কুষ্টিয়া কুমারখালী উপজেলার চাপড়া ইউনিয়নের জয়নাবাদ গ্রামের মৃত আমির হোসেনের ছেলে নিহত লাইনম্যান মো. মানিক হোসেন (৪০)।

একই এলাকার মৃত তছলেম হোসেনের ছেলে আহত হেডমিস্ত্রী রাজু হোসেন (৪৫)।

জানা যায়, কুমারখালীর ওয়েস্ট জোন পাওয়ার ড্রিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের ( ওজোপাডিকোলি) পৌরসভার খোকনমোড় এলাকায় উন্নয়নমূলক কাজ করছিলেন ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের শ্রমিকরা। উন্নয়ন কাজের জন্য বেলা দুইটা পর্যন্ত বিদ্যুত লাইন বন্ধ রাখার কথা বলেছিলেন সহকারী প্রকৌশলী মো. রাজু হোসেন। কাজ চলাকালীন সময়ে শ্রমিকদের সঙ্গে একাধিকবার মুঠোফোনে রাজুর কথা হয়েছিল। কিন্তু হঠাৎ বেলা দেড়টার দিকে লাইন চালু হলে বিদ্যুতায়িত হয়ে লাইনম্যান মানিক ও হেডমিস্ত্রি রাজু গুরুতর আহত হন। পরে অন্যান্য শ্রমিকরা তাদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানকার চিকিৎসক মানিককে মৃত ঘোষণা করেন এবং উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজুকে কুষ্টিয়া সদর হাসপাতালে পাঠান।

মোড়ে কাজ করছিলেন। রাজু স্যারের সঙ্গে তাদের বারবার কথা হচ্ছিল। দুইটা পর্যন্ত লাইন বন্ধ থাকার কথা ছিল। কিন্তু আগেই লাইন চালু হলে দুর্ঘটনায় মানিক মারা যান এবং হেডমিস্ত্রি আহত হন বলে জানান শ্রমিক রফিকুল ইসলাম তারা খোকন।

অন্য সাইডের কাজে ছিলেন। লাইন বন্ধ রাখার কথা ছিল। কিন্তু নির্দিষ্ট সময়ের আগেই লাইন চালু হওয়ায় এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। খবর পেয়ে তিনি ঘটনাস্থলে ছুটে গিয়েছেন এবিষয়ে কাজের ঠিকাদার ময়েজ উদ্দিন জানিয়েছেন।

শ্রমিকদের অভিযোগ অস্বীকার করে কুমারখালী ওজোপাডিকোলি’র প্রকৌশলী মো. মখলেছুর রহমান ও সহকারী প্রকৌশলী রাজু হোসেন বলেন, এক অঞ্চলের লাইন বন্ধ করে শ্রমিকরা অন্য অঞ্চলে কাজ করছিলেন। ঠিকাদারের ভুলেই এ মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটেছে।

বিদ্যুত অফিস দুইটার পরিবর্তে দেড়টার দিকে লাইন চালু করায় এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান কুষ্টিয়ার কুমারখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মোহসীন হোসাইন।