Home কুষ্টিয়া কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে ছাত্রকে মারধরের ঘটনায় শিক্ষা অফিসে অভিযোগ 

কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে ছাত্রকে মারধরের ঘটনায় শিক্ষা অফিসে অভিযোগ 

170

কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে ছাত্রকে মারধরের ঘটনায় শিক্ষা অফিসে অভিযোগ

আছানুল হক কুষ্টিয়া দৌলতপুর

কুষ্টিয়া দৌলতপুর উপজেলার আদাবাড়ীয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ছাত্রকে মারধরের ঘটনায় শিক্ষা অফিসার বরাবর অভিযোগ করেছেন ছাত্রের বাবা।

অভিযোগে উল্লেখ করেন আমি মোঃ লালন মন্ডল (৩৬) পিতা মোঃ জামাল মন্ডল, সাং-আদাবাড়ীয়া মন্ডলপাড়া, ইউপি আদাবাড়ীয়া, থানা-দৌলতপুর, জেলা কুষ্টিয়া। মোঃ মাহাতাব মাষ্টার (৫৫), পিতা-মৃত জান মোহাম্মদ বাগোয়ান, ইউপি, মথুরাপুর, থানা-দৌলতপুর, জেলা কুষ্টিয়ার বিরুদ্ধে এই মর্মে অভিযোগ করিতেছি যে, মাহাতাব আদাবাড়ীয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক। আমার ছেলে মোঃ আসিব (১৫) উক্ত স্কুলের ৮ম শ্রেণীর ছাত্র। ইং ১৪/০৯/২২ তাং বেলা অনুমান ১১.০০ টার সময় আমার ছেলে ৮ম শ্রেনীর ক্লাসের ১ম বেঞ্চে বসা ছিল। সেই সময় শিক্ষক উক্ত ক্লাসের যাইয়া লাঠি দিয়া আমার ছেলেকে বেধড়ক ভাবে মারপিট করে। আমার ছেলের ডান হাতে বৃদ্ধা আঙ্গুলে ফাটা রক্তাক্ত জখম করে এবং শরীরের বিভিন্ন স্থানে ফোলা ও কালশিরা জখম করে। এরপর আমার ছেলে আহত অবস্থায় বাড়ীতে আসে এবং আমার ছেলের নিকট ঘটনা জানিতে পারি। এরপর আমি বেলা অনুমান ১২.০০ টার সময় আমি স্কুলে যাইয়া মারপিট করার কারন জানতে চাইলে শিক্ষক আমাকেও গালিগালাজ করে ও মারমুখি আচারন করে এবং খুন জখমের হুমকি দেয়। এরপর আমার ছেলেকে দৌলতপুর হাসপাতালে নিয়ে যায় সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা করানো হয়। উক্ত ঘটনার স্বাক্ষী ১। মোঃ তরিকুল (১৫), পিতা-অজ্ঞাত, সাং-আদাবাড়িয়া মালিখাপাড়া, থানা-দৌলতপুর, জেলা-কুষ্টিয়া সহ আরো অনেকে ঘটনা দেখে ও শোনে।

এ বিষয়ে আদাবাড়ীয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধানমন্ত্রী শিক্ষক মিজানুর রহমান বলেন, ঘটনাটি আমি শুনেছি। আমি ঐ দিন বিদ্যালয়ে ছিলাম না বিদ্যালয়ের কাজে বাহিরে ছিলাম। তবে বিষয়টির তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ বিষয়ে শিক্ষক মাহাতাব বলেন, আমি ইচ্ছা করে মারি নাই। ছাত্ররা ক্লাসে গান করছিল তাই একটু বলতে সাবধানতা বসত ছাত্রটির লেগেছে।

এ বিষয়ে উপজেলা শিক্ষা অফিসার সরদার আবু সালেক বলেন, বিষয়টি গুরুত্বসহকারে দেখা হচ্ছে তদন্ত করে বিধি অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।