Home বাংলাদেশ গায়ে হলুদের রাতে গলায় ফাঁস দিয়ে প্রেমিকার আত্মহত্যা, প্রেমিকের বিষপান

গায়ে হলুদের রাতে গলায় ফাঁস দিয়ে প্রেমিকার আত্মহত্যা, প্রেমিকের বিষপান

7

গায়ে হলুদের রাতে গলায় ফাঁস দিয়ে প্রেমিকার আত্মহত্যা, প্রেমিকের বিষপান

কুমিল্লায় গলায় ফাঁস দিয়ে গায়ে হলুদের রাতেই আত্মহত্যা করেছেন শারমিন আক্তার নামে এক তরুণী।

শুক্রবার (৫ মে) ভোর সাড়ে ৪টার দিকে নগরীর বাগিচাগাঁও এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

তিনি নগরীর বাগিচাগাঁও এলাকায় পরিবারের সঙ্গে ভাড়া বাসায় থাকতেন।শারমিন আক্তারের গ্রামের বাড়ি জেলার সদর উপজেলার কাচিয়াতলী এলাকায়।

এদিকে ওই তরুণীর আত্মহত্যার খবর পেয়ে তার প্রেমিক মো. রনি বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা চালায়। তাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তিনি একই উপজেলার পালপাড়া এলাকার তাজুল ইসলামের ছেলে।

এলাকাবাসী ও পুলিশ জানান, শুক্রবার শারমীনের বিয়ের তারিখ নির্ধারণ করা হয়। বিয়ের আগের রাতে নগরীর একটি পার্টি সেন্টারে গায়ে হলুদ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। খবর পেয়ে ওই অনুষ্ঠানে শারমিন আক্তারের সঙ্গে দেখা করতে আসে তার প্রাক্তন প্রেমিক রনি। সে প্রেমিকা শারমিন আক্তারকে এ বিয়ে না করার জন্য অনুনয় করেন। একপর্যায়ে উপস্থিত লোকজনের মধ্যস্থতায় প্রাক্তন রনি অনুষ্ঠানস্থল ত্যাগ করে। কিন্তু অনুষ্ঠান শেষে শারমিন বাসায় ফিরে শুক্রবার ভোরে দুটি ওড়না দিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন।

এক বছর আগেই শারমিনের সঙ্গে তার বিয়ে হয়। কিন্তু আমাদের পরিবারের আর্থিক অবস্থা ভালো না হওয়ায় শারমিনের পরিবার সম্পর্ক রাখতে রাজি হয়নি ও ডিভোর্স ছাড়াই তাকে অন্যত্র বিয়ের ব্যবস্থা করেন। শারমিন দুই মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিল বলে সাংবাদিকদের রনি জানিয়েছেন।

তবে এসব অভিযোগ অভিযোগ অস্বীকার করেছে শারমিনের পরিবার।

ভোর রাতের দিকে আত্মহত্যার খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায় কিন্তু পৌঁছার আগেই শারমিনের স্বজনরা মরদেহ নামিয়ে স্থানীয় একটি প্রাইভেট হাসপাতালে নিয়ে যান। পরে সেখানকার চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন বলে জানান কোতয়ালী মডেল থানার ওসি আহাম্মদ সনজুর মোরশেদ।