Home বাংলাদেশ চুরি করতে গিয়ে দোকানে অবরুদ্ধ হয়ে পড়েন চোর, ৯৯৯-এ ফোন করে সহায়তা...

চুরি করতে গিয়ে দোকানে অবরুদ্ধ হয়ে পড়েন চোর, ৯৯৯-এ ফোন করে সহায়তা চাইলেন চোর 

230

চুরি করতে গিয়ে দোকানে অবরুদ্ধ হয়ে পড়েন চোর, ৯৯৯-এ ফোন করে সহায়তা চাইলেন চোর

চুরি করতে গিয়ে একটি দোকানে অবরুদ্ধ হয়ে পড়েন এক চোর বরিশালের সদর উপজেলার চরকাউয়া ইউনিয়নে। এ সময় নিজেকে উদ্ধার করতে জরুরি সেবা নম্বর ৯৯৯-এ ফোন করে সহায়তা চান তিনি। পরে পুলিশ গিয়ে তাকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

২০ অক্টোবর বৃহস্পতিবার সকালে বন্দর থানার (সাহেবেরহাট) ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আসাদুজ্জামান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

আটক মো. ইয়াছিন খাঁ (৪১) বর্তমানে পরিবার নিয়ে বরিশাল নগরীর কালুশাহ সড়ক এলাকার একটি ভাড়া বাসায় থাকেন। তার গ্রামের বাড়ি ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলার ছিলারিশ গ্রাম।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায় উপজেলার চরকাউয়া ইউনিয়নের এ আর খান বাজারের ঝন্টু হাওলাদারের মুদি দোকানের ভেতর থেকে বন্দর থানা পুলিশ এক ব্যক্তিকে উদ্ধার করে। এ সময় স্থানীয় কেউ কিছু বুঝে উঠতে পারছিল না।

চুরির উদ্দেশে বুধবার ভোররাতে ঝাপের তালা ভেঙে দোকানে ঢুকেছিলেন তিনি। তবে মালামাল চুরি ও তা নিয়ে যাওয়ার জন্য ব্যাগভর্তি করতে সময় গড়িয়ে সকাল হয়ে যায়। একই সঙ্গে দোকানের সামনে লোকজনের আনাগোনা বেড়ে যায়। তখন আর দোকান থেকে মালামাল নিয়ে পালানোর সুযোগ ছিল না। আর ধরা পড়লে জনতার হাতে মারধরের শিকার হবেন, এমন আশঙ্কা থেকে ৯৯৯-এ কল করে সহায়তা চেয়েছেন বলে জানান ওই ব্যক্তি পুলিশকে।

আটককৃত ব্যক্তি বুধবার সকালে জরুরি সেবা নম্বর ৯৯৯-এ কল করে বলেন, তিনি খুব বিপদে পড়ছেন। তাকে যেন দ্রুত পুলিশ এসে উদ্ধার করে। পরে তাকে কনফারেন্সে রেখে ৯৯৯ থেকে বন্দর থানার (সাহেবেরহাট) ডিউটি কর্মকর্তাকে জানানো হয়। এ সময় তাকে দ্রুত উদ্ধারের ব্যবস্থা নেন। পরে পুলিশ সদস্যরা গিয়ে দোকানের ভেতর থেকে তাকে উদ্ধার করেন। তাকে উদ্ধারের সময় দোকানের দামি মালামাল ব্যাগে ভর্তি করা ছিল।পুলিশ সদস্যদের আটককৃত ব্যক্তি জানান, চুরির মালামাল গুছিয়ে ব্যাগ ভর্তি করতে তার বেশি সময় লেগেছে। লোকজন দোকানের পাশে অবস্থান করছিল। এ কারণে তিনি বের হতে পার ছিলেন না। তার জীবনের ঝুঁকি ছিল। তার এসব কথা শুনে উদ্ধার করতে যাওয়া পুলিশ সদস্যরা কিছুটা অবাক হয়েছেন। পরে তাকে একটি চুরি মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে বুধবার বিকেলে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে বলে জানান বন্দর থানার (সাহেবেরহাট) ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আসাদুজ্জামান।