Home বাংলাদেশ ছেলের অপমানে মায়ের আত্মহত্যা

ছেলের অপমানে মায়ের আত্মহত্যা

10

ছেলের অপমানে মায়ের আত্মহত্যা

ছেলের গালিগালাজ, লাঞ্ছনা, অপমান সহ্য করতে না পেরে রেবেকা বেগম নামে এক নারী আত্মহত্যা করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ হাসপাতালে শুক্রবার সকালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

উপজেলার তৈলকূপী গ্রামের মৃত আদিল উদ্দীনের স্ত্রী রেবেকা বেগম। তার মৃত্যুর পর থেকে ছেলে ফারুক হোসেন পলাতক রয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ছেলে ফারুকের সঙ্গে রেবেকা বেগমের ঝগড়া শুরু হয় সাংসারিক বিষয় নিয়ে বৃহস্পতিবার সকালে। একপর্যায়ে ফারুক তার মাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে ও ধাক্কা দিয়ে চলে যায়। এর কিছুক্ষণ পর রেবেকা বেগম অভিমানে ঘরে থাকা ঘাস মারা বিষ পান করেন। পরে পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

এলাকাবাসীরা জানান ,২৬ বছর আগে রেবেকার স্বামী মারা যান। সেই থেকে রেবেকা পরের বাসা বাড়িতে ঝিয়ের কাজ করে দুই সন্তানকে বড় করেছেন। বর্তমানে তিনি কচাতলায় একটি ইটভাটায় শ্রমিকদের ভাত রান্নার কাজ করতেন।

দীর্ঘদিন ধরেই অসুস্থ ছিলেন। শারীরিক যন্ত্রণা ও সংসারের অভাব অনটন থেকেই তিনি বিষ খেয়েছেন বলে দাবি করেন তিনি।বলে জানান ফারুকের খালা ফেরদৌসী বেগম রেবেকা।

লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে।বলে জানান কালীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহবুবুর রহমান।