Home জাতীয় টাকা না পেয়ে মোটরসাইকেল নিয়ে গেল ট্রাফিক পুলিশ

টাকা না পেয়ে মোটরসাইকেল নিয়ে গেল ট্রাফিক পুলিশ

104

টাকা না পেয়ে বাড়ি থেকে জোরপুর্বক মোটরসাইকেল নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ উঠেছে ঝিনাইদহের ট্রাফিক পুলিশ সদস্য বিরুদ্ধে। বাঁধা দিলে গ্রেফতারের হুমকিও দেয় তারা। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী ঝিনাইদহ শহরের আদর্শপাড়ার বাসিন্দা শিহাবুজ্জামান বিভিন্ন স্থানে অভিযোগ দিয়েছে।
অভিযোগ থেকে জানা যায়, গত ৩১ ডিসেম্বর রাত ১১ টার দিকে অভিযুক্ত সদর ট্রাফিক পুলিশের এ টি এস আই মাহবুবুর রহমান আরও কয়েকজনকে সাথে নিয়ে আদর্শপাড়ার বাসিন্দা শিহাবুজ্জামানের বাড়িতে যায়। তার বাড়ি থেকে জোরপুর্বক মোটরসাইকেল নিয়ে আসে। সেসময় শিহাবুজ্জামান বাঁধা দিলে তাকে হ্যান্ডকাপ দেখিয়ে গ্রেফতারে হুমকি দেয়।

অভিযুক্ত শিহাবুজ্জামান জানান, এ টি এস আই মাহবুবুর রহমান তার কাছে ১০ হাজার টাকা পান। প্রায় সময় উভয়ের মাঝে টাকা লেনদেন ছিলো। কিন্তু হঠাৎ করে গত ৩১ ডিসেম্বর তাদের সদর ট্রাফিক পুলিশের অন্যান্য সদস্যদের সাথে নিয়ে তার বাড়িতে যায়। সেখানে কোন কথা না বলে মোটরসাইকেল নিয়ে চলে আসেন।

শিহাবুজ্জামান বলেন, একজন পুলিশ কর্মকর্তা কিভাবে আমার বাড়ি থেকে জোর করে মোটরসাইকেল নিয়ে যেতে পারে। উপরন্তু এখন আমাকে বিভিন্ন ভাবে হুমকি দিচ্ছে। মামলা দিয়ে ফাঁসানোর হুমকি দিচ্ছে।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত এ টি এস আই মাহবুবুর বলেন, আমি তার কাছে টাকা পাবো এটা সঠিক। কিন্তু মোটরসাইকেল জোর করে আনার ঘটনা সঠিক না। শিহাবের ভগ্নিপতি জুয়েল আমার কাছে মোটরসাইকেল টি রেখে গেছে। আমরা আনিনি। টাকা দিয়ে মোটরসাইকেল নিয়ে যাবে।