Home কুষ্টিয়া দুদুকের মামলার আসামী আব্দুর রশীদ বদলীর সময়েও আখেরী বাণিজ্যে মাঠে নেমেছে

দুদুকের মামলার আসামী আব্দুর রশীদ বদলীর সময়েও আখেরী বাণিজ্যে মাঠে নেমেছে

241

বদলী আদেশের পরেও কোটি টাকার আখেরী নিয়োগ বাণিজ্যে কুমারখালী শিক্ষা অফিসার।

কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলার বহুল আলোচিত শিক্ষা অফিসার আব্দুর রশীদ গত ৩০ অক্টোবর এক সরকারী আদেশে কুমারখালী উপজেলা থেকে বদলী করে ঝিনাইদহে কোর্টচাদপুর উপজেলায় পদায়ন করা হয়েছে। দুদুকের মামলার আসামী আব্দুর রশীদ বদলীর সময়েও আখেরী বাণিজ্যে মাঠে নেমেছে। সরকারী নিয়ম বহির্ভুতভাবে ১০টি নিয়োগ দিতে যাচ্ছে। প্রায় কোটি টাকার মিশন নিয়ে তিনি মাঠে নেমেছেন। স্থানীয়রা জানান, কুমারখালীর সাঁওতা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৪র্থ শ্রেণীর ৩টি পদে প্রায় অর্ধকোটি টাকার বাণিজ্যের অভিযোগ উঠেছে। ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের স্ত্রী এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অফিস সহকারী এবং তাদের ছেলেকে দপ্তরী পদে নিয়োগ দেওয়ার জন্য গোপনে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছেন। আগামীকাল ৪ই নভেম্বর এই নিয়োগ পরীক্ষার তারিখ প্রদান করা হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে এলাকায় ব্যাপক সমালোচনার ঝড় উঠেছে।
একজন শিক্ষা কর্মকর্তা বদলীর সময় কিভাবে এতগুলো নিয়োগ প্রদান করতে পারেন? সরকারী বিধি বহির্ভুতভাবে এই অবৈধ নিয়োগের বিরুদ্ধে সোচ্চার এলাকাবাসী। তারা এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন।

রসিকজনেরা বলছেন, ‘বাবাজি আমার কসাই চামার, চাহেনা ছাড়িয়া দিতে’। এই প্রবাদের বাস্তবতা দেখা যাচ্ছে কুমারখালী শিক্ষা অফিসার আব্দুর রশীদের ক্ষেত্রে। এ বিষয়ে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানিয়ে সংশি-ষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষন করেছে উক্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও অভিভাবকগণ ।