Home কুষ্টিয়া দৌলতপুর থানা পুলিশের অভিযানে ৩১৫ কেজি গাঁজা উদ্ধার : মাদক ব্যবসায়ীদের কাছে...

দৌলতপুর থানা পুলিশের অভিযানে ৩১৫ কেজি গাঁজা উদ্ধার : মাদক ব্যবসায়ীদের কাছে আতঙ্ক ওসি রফিকুল 

9

দৌলতপুর থানা পুলিশের অভিযানে ৩১৫ কেজি গাঁজা উদ্ধার : মাদক ব্যবসায়ীদের কাছে আতঙ্ক ওসি রফিকুল

দৌলতপুর কুষ্টিয়া

কুষ্টিয়া জেলার দৌলতপুর উপজেলার রামকৃষ্ণপুর ইউনিয়নের ইসলামপুর বরইতলা গ্রামে অভিযান পরিচালনা করে ৩২ টি গাঁজার গাছ উদ্ধার করেছে দৌলতপুর থানা পুলিশ।

রবিবার (১৫ অক্টোবর) বিকেল ৪:৩০ মিনিটে উপপরিদর্শক দর্জি আবু জাফর সঙ্গীও ফোর্স নিয়ে ফজল মন্ডল(৭০) এর বাড়িতে অভিযান করলে বাড়ির আঙ্গিনায় চাষাবাদ অবস্থায় ৩২ টি গাঁজার গাছ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসেন। যার ওজন ৩১৫ কেজি।

অভিযানের খবর টের পেয়ে ফজল মন্ডল ও তার স্ত্রী আম্বিয়া পালিয়ে যায়। আম্বিয়ার নামে দৌলতপুর থানায় মাদক মামলা চলমান রয়েছে।

এ দিকে এলাকাবাসী বলেন ওসি রফিকুল ইসলাম দৌলতপুর থানায় যোগদানের পরে, মাদকদ্রব্য , অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার ও বিভিন্ন জুয়ার আসরে অভিযান চালিয়ে মামলা দিয়েছেন। মাদক ব্যবসায়ী সহ বিভিন্ন অপকর্মের সাথে জড়িত ব্যক্তিদের কাছে রফিকুল ইসলাম এক আতঙ্ক হিসেবে পরিচিত লাভ করেছে ।

উল্লেখ্য, গত ২৩ শে জুন দৌলতপুর থানায় ওসি রফিকুল ইসলাম যোগদান করেন।যোগদানের পর থেকেই দৌলতপুরের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক অবস্থা নিয়ে আসার জন্য তার নেতৃত্বে শুরু হয় অভিযান। ২৩ শে জুন থেকে অক্টোবর মাসের ১৫ তারিখ পর্যন্ত ৬৭ টি মাদক মামলা হয়েছে থানায়, আসামী গ্রেফতার হয়েছে ৮০ জন, উদ্ধার হয়েছে ফেন্সিডিল ৫২৪ বোতল, গাঁজা ৬১৬ কেজি ৩৫০ গ্রাম, ইয়াবা ২১৬৩ পিচ, টাপেন্টাডল ৯৪৪ পিচ, মদ ৪ বোতল ও ১০ লিটার। জুয়ারি আটক হয়েছে ৪৫ জন যাদের নামে পৃথকভাবে ৭ টি মামলা হয়েছে। এছাড়াও ৬ রাউন্ড গুলি সহ অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার হয়েছে ৩ টি।

দৌলতপুর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রফিকুল ইসলাম বলেন, মাদকের বিষয়ে কোন প্রকার কোন ছাড় নেই। মাদক উদ্ধার অভিযান চলমান আছে। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উপজেলা রামকৃষ্ণপুর ইউনিয়ন থেকে ৩১৫ কেজি গাঁজা উদ্ধার করা হয়েছে। এ বিষয়ে রবিবার রাতে দৌলতপুর থানায় মাদক নিয়ন্ত্রণ আইনের মামলা হয়েছে এবং পলাতক আসামীদের আটকের জন্য অভিযান অব্যাহত আছে।