Home বাংলাদেশ পরিবারের অজান্তে বিয়ে, পরদিন তরুণের রহস্যজনক মৃত্যু!

পরিবারের অজান্তে বিয়ে, পরদিন তরুণের রহস্যজনক মৃত্যু!

171

পরিবারের অজান্তে বিয়ে, পরদিন তরুণের রহস্যজনক মৃত্যু!

একটি বেসরকারি হাসপাতাল থেকে ইয়াছিন আরাফাত আবিদ (২১) নামে এক তরুণের মরদেহ ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। আবিদ জেলা শহরের পশ্চিম পাইকপাড়ার ট্যাংকেরপাড় এলাকার হেলাল মিয়ার ছেলে। বৃহস্পতিবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

২২ ফেব্রুয়ারি বুধবার সকালে জন্ম নিবন্ধন সংশোধনের জন্য বাসা থেকে বের হয় আবিদ। এরপর আর তাকে খুঁজে পাওয়া যায়নি। বৃহস্পতিবার দুপুরের পর আশুগঞ্জের একটি বেসরকারি হাসপাতালে আবিদ মারা গেছে বলে জানতে পারি। খবর পেয়ে সেখানে গিয়ে দেখি তার মরদেহের পাশে একটি মেয়ে বসা। মেয়েটি জানায়, সে আবিদের স্ত্রী এবং মৃত অবস্থায় আবিদের মরদেহ হাসপাতালে নিয়ে এসেছে। মেয়েটি আরও জানায়, আবিদ ফাঁসি দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। মেয়েটির কথা অনুযায়ী আমরা ওই বাসায় গিয়ে দেখি ফাঁসিতে ঝোলার মতো কিছু সেখানে নেই। তাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে বলে জানান নিহতের চাচা জাকির হোসেন।

একটি বেসরকারি হাসপাতাল থেকে ইয়াছিন আরাফাত আবিদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। হাসপাতালে মরদেহের সঙ্গে তৃষা নামের এক তরুণী ছিল। তরুণী পুলিশকে জানান, আবিদের সঙ্গে তার প্রেমের সম্পর্ক ছিল। বুধবার তারা পরিবারের অজান্তে বিয়ে করে পরিচিত এক বাসায় ছিলেন। বৃহস্পতিবার সকালে টয়লেট থেকে ফিরে দেখে, আবিদ আত্মহত্যা করেছে। পরে হাসপাতালে নিয়ে আসলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন বলে জানান আশুগঞ্জ থানার ওসি আজাদ রহমান।

তিনি আরও জানান, ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। রিপোর্ট আসার পর মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে। এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী তৃষাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় আনা হয়েছে।