Home আন্তর্জাতিক পাঁচতারা হোটেলে চার মাস থেকে ২৩ লক্ষ টাকা বিল না দিয়েই চম্পট 

পাঁচতারা হোটেলে চার মাস থেকে ২৩ লক্ষ টাকা বিল না দিয়েই চম্পট 

140

পাঁচতারা হোটেলে চার মাস থেকে ২৩ লক্ষ টাকা বিল না দিয়েই চম্পট

বিলের ২৩ লক্ষ টাকা না মিটিয়েই চম্পট দেন। শনিবার ওই ব্যক্তির নামে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে দিল্লির ওই পাঁচতারা হোটেল কর্তৃপক্ষ। তদন্ত শুরু করেছে দিল্লি পুলিশ।

মিথ্যা নাম-পরিচয় দিয়ে দিল্লির এক বিলাসবহুল হোটেলে চার মাস কাটান এক ব্যক্তি। দাবি করেন, আবু ধাবির রাজপরিবারের সঙ্গে যোগ রয়েছে তাঁর। তার পর বিলের ২৩ লক্ষ টাকা না মিটিয়েই চম্পট দেন। সঙ্গে হোটেলের ঘরের কিছু দামি জিনিসও চুরি করে নিয়ে যান বলে অভিযোগ। শনিবার ওই ব্যক্তির নামে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে দিল্লির ওই পাঁচতারা হোটেল কর্তৃপক্ষ। তদন্ত শুরু করেছে দিল্লি পুলিশ।

দিল্লি পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই ব্যক্তির নাম মহম্মদ শরিফ। ১ আগস্ট দিল্লির ওই হোটেলের ৪২৭ নম্বর ঘরে থাকতে আসেন তিনি। ২০ নভেম্বর কাউকে কিছু না বলেই কেটে পড়েন। হোটেলকর্মীদের দাবি, ঘরে থাকা রুপোর বাসন এবং একটি মুক্তোর রেকাবি চুরি করে নিয়েছেন শরিফ।

হোটেল কর্তৃপক্ষ পুলিশকে জানিয়েছে, আগস্টে শরিফ হোটেলে থাকতে এসে জানিয়েছিলেন, তিনি আরব আমিরশাহির বাসিন্দা। আবু ধাবির শেখ ফালাহ্ বিন জায়েদ আল নাহিয়ান রাজপরিবারের সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা রয়েছে তাঁর। শরিফ হোটেল কর্মীদের কাছে এই দাবিও করেন যে, আবু ধাবির যুবরাজের সঙ্গে কাজ করেন তিনি। ভারতে সরকারি ব্যবসার কাজেই এসেছেন। নিজের দাবির সপক্ষে প্রমাণ দিতে বিজনেস কার্ড, আরব আমিরশাহির নাগরিক হওয়ার নথি এবং অন্য নথিও দেখিয়েছিলেন। হোটেলকর্মীদের সঙ্গে প্রায়ই আবু ধাবিতে নিজের জীবনযাপনের কথা বলতেন। পুলিশ সে সব নথি খতিয়ে দেখছে। তাদের ধারণা, ওই নথিগুলি জাল।

সূত্র আনন্দবাজার