Home কুষ্টিয়া প্যানেল মেয়র শাহিন উদ্দিনের ব্যানারে দখল সড়কবাতির খুঁটিতে, সৌন্দর্য হারাচ্ছে কুষ্টিয়া শহর  

প্যানেল মেয়র শাহিন উদ্দিনের ব্যানারে দখল সড়কবাতির খুঁটিতে, সৌন্দর্য হারাচ্ছে কুষ্টিয়া শহর  

56

প্যানেল মেয়র শাহিন উদ্দিনের ব্যানারে দখল সড়কবাতির খুঁটিতে, সৌন্দর্য হারাচ্ছে কুষ্টিয়া শহর

কুষ্টিয়া পৌরসভার আদেশ অমান্য করে একটি দুটি নয়, কয়েকশত ঈদ শুভেচ্ছার নামে কুষ্টিয়া পৌরসভার ১৪নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ও পৌরসভার প্যানেল মেয়র শাহিন উদ্দিনের অবৈধ ব্যানার-ফেস্টুনে ছেয়ে গেছে সড়কবাতির খুঁটি (পোল)। এতে শহরে যেমন সৌন্দর্যহানি হচ্ছে তেমনি রাতের বেলায় সড়কে আলোকস্বল্পতাও দেখা দিয়েছে। ফলে তৈরি হচ্ছে দুর্ঘটনার শঙ্কাও।

এ চিত্র দেখা গেছে কুষ্টিয়া শহরের প্রাণকেন্দ্র এন এস রোড়ের সড়কবাতির খুঁটি সহ একই অবস্থা শহরের গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন সড়কেও।

এই নিয়ে কুষ্টিয়া পৌরসভার প্রশাসনিক কর্মকর্তা মাহামুদ রেজা চৌধুরীর জানান, ব্যানার-ফেস্টুন লাগানোর ব্যাপারে অনুমতি নেওয়া হয়নি। ক্ষোভ থাকলেও তাঁরা কিছু বলতে পারছেন না।

কুষ্টিয়ার পৌরসভার বাসিন্দারা বলছে, রক্ষক যখন ভক্ষকের ভূমিকায় অবতীর্ণ। প্যানেল মেয়র শাহিন উদ্দিনের ব্যানার-ফেস্টুন তারই চিত্র। খোদ কুষ্টিয়ার পৌর কর্তৃপক্ষের সড়কবাতির খুঁটিতে ব্যানার ফেস্টুন লাগাতে নিষেধাজ্ঞা থাকলেও গায়ের জোরে কুষ্টিয়ার পৌরসভার প্যানেল মেয়র শাহিন উদ্দিন অবৈধভাবে এসব ব্যানার-ফেস্টুন লাগিয়েছেন। ফলে তৈরি হচ্ছে দুর্ঘটনার শঙ্কা। ব্যানার-ফেস্টুনের কারণে সড়কের দুপাশ দেখা না যাওয়ায় চলাচলে সৃষ্টি হয়েছে পথচারীদের ভোগান্তিও। তাই এসব ব্যানার ফেস্টুন অপসারণে শিগগির ব্যবস্থা নিবেন বলে কুষ্টিয়ার পৌরসভার মেয়র ও প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

নাম-প্রকাশ না করার শর্তে পৌরসভার কর্মচারীরা জানান, নির্দেশদাতা কর্মকর্তাই যখন নির্দেশ ভঙ্গকারী হয়। তখন সাধারণ জনগণ শুধুই নির্বাক দর্শক হয়। সড়কবাতির খুঁটি দখল করে ব্যানার ফেস্টুনগুলো লাগানোর কারণে প্রায়ই খুঁটিতে থাকা সড়কবাতির সংযোগ তার ছিঁড়ে যায়। এতে সড়কবাতি জ্বলে না। তাছাড়া অতিরিক্ত ফেস্টুনের কারণে সড়কে আলোকস্বল্পতাও দেখা দেয়। নিষেধ করা সত্ত্বেও এসব ব্যানার ফেস্টুন লাগানো যেন থেমে নেই কুষ্টিয়ার পৌর এলাকায়।

কোন ব্যানার ফেস্টুন শহরের সৌন্দর্য বর্ধন বৃদ্ধি করে না। সৌন্দর্য ধরে রাখার জন্য যেকোনো স্থানে ব্যানার, ফেস্টুন লাগানো থেকে সকলকে বিরত থাকতে হবে বলে জানান কুষ্টিয়া পৌরসভার নগর পরিকল্পনাবিদ রানভীর আহমেদ এটা যারই হোক।

এ ব্যাপারে কুষ্টিয়া পৌরসভার মেয়র আনোয়ার আলী জানান, বিষয়টি আমার নজরে এখনো পড়েনি। বিষয়টি দেখে অবশ্যই ব্যবস্থা নেওয়া হবে।