Home বাংলাদেশ প্রেমিকের সঙ্গে খোশগল্পে ব্যস্ত গৃহবধূ,পার্কে সুইমিংপুলে ডুবে গেল দুই শিশুসন্তান

প্রেমিকের সঙ্গে খোশগল্পে ব্যস্ত গৃহবধূ,পার্কে সুইমিংপুলে ডুবে গেল দুই শিশুসন্তান

206

প্রেমিকের সঙ্গে খোশগল্পে ব্যস্ত গৃহবধূ,পার্কে সুইমিংপুলে ডুবে গেল দুই শিশুসন্তান

এক হৃদয় বিদারক দৃশ্যের অবতারণা হলো ঢাকার দক্ষিণ কেরানীগঞ্জের রাজাবাড়ি এলাকায় অবস্থিত গার্ডেন পার্কে। সেখানে প্রেমিকের সঙ্গে খোশগল্পে ব্যস্ত ছিলেন গৃহবধূ। এ সময় ওই পার্কে সুইমিংপুলে ডুবে ভাই-বোনের মৃত্যু হয়েছে।

নিহত শিশুরা হলো- ফাহিম (৩) ও আদিজা (৫)। দুই শিশুর মায়ের নাম জিন্নাত আরা। আর বাবার নাম মোখলেসুর রহমান মিন্টু। তিনি পেশায় রাজমিস্ত্রি। গ্রামের বাড়ি লক্ষ্মীপুর জেলা সদরের নকতনপুর এলাকায়। স্ত্রী সন্তানদের নিয়ে গদারবাগ এলাকার নবীন মিয়ার বাড়িতে ভাড়া থাকেন।

ঘটনার সময় পার্কের ভেতরেই ওই দুই শিশুর মা জিন্নাত আরা উপস্থিত ছিলেন। দুই শিশুর লাশ উদ্ধারের পর জিন্নাত আরাকে পুলিশ আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করে।

১১ মার্চ শনিবার রাতে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মিটফোর্ড হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।

জিজ্ঞাসাবাদে দুই শিশুর মা জানিয়েছে- জুলহাস নামে এক ব্যক্তির সঙ্গে তার সম্পর্ক রয়েছে। পরকীয়া প্রেমিক জুলহাসের সঙ্গে সময় কাটাতে দুই শিশুসন্তানকে নিয়ে শনিবার বিকেলে গদারবাগের বাসা থেকে রাজাবাড়ি গার্ডেন পার্কে আসেন। গার্ডেন পার্কে ঢোকার পর জিন্নাত আরা দুই শিশুকে অরক্ষিত অবস্থায় ছেড়ে দিয়ে আড়ালে বেঞ্চে বসে জুলহাসের সঙ্গে প্রেমালাপে সময় কাটাতে থাকেন। কিভাবে তার দুই সন্তান সুইমিংপুলের পানিতে পড়েছে সে জানে না। এদিকে ঘটনার পর পরকীয়া প্রেমিক জুলহাস পালিয়ে গেছে। তাকে আটকের চেষ্টা চলছে বলে গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ শাহজামান।

ওসি আরও জানান, ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন পেলে দুই শিশুর মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে।

বিকেলে তার স্ত্রী মোবাইলে কল করে দুই বাচ্চাকে নিয়ে ডাক্তারের কাছে যাবে বলে জানায়। পরে সন্ধ্যার দিকে দুই সন্তানের মৃত্যুর বিষয়টি জানতে পারেন। তার অভিযোগ, স্ত্রী পরকীয়া প্রেমিক জুলহাসের সঙ্গে পার্কে ঘুরতে গিয়ে পরিকল্পিতভাবে বাচ্চা দুটিকে হত্যা করে পানিতে পড়ার নাটক সাজিয়েছে বলে জানান দুই শিশুর পিতা মোখলেছুর রহমান।