Home আন্তর্জাতিক ভারী বৃষ্টিতে জল থৈথৈ ক্লাসঘর,রাস্তায় বসেই পড়াশোনা ৭০ জন স্কুলপড়ুয়ার

ভারী বৃষ্টিতে জল থৈথৈ ক্লাসঘর,রাস্তায় বসেই পড়াশোনা ৭০ জন স্কুলপড়ুয়ার

14

ভারী বৃষ্টিতে জল থৈথৈ ক্লাসঘর, বিহারে রাস্তায় বসেই পড়াশোনা ৭০ জন স্কুলপড়ুয়ার

গত কয়েক দিনের ভারী বৃষ্টিতে বিহারের ওই প্রাথমিক স্কুলের শ্রেণিকক্ষ গুলি জলমগ্ন অবস্থায় রয়েছে। তাই রাস্তায় বসেই পড়াশোনা করতে হচ্ছে খুদে পড়ুয়াদের।

ভারী বৃষ্টিতে জল থৈথৈ ক্লাসঘর। অগত্যা রাস্তার উপরে বসেই ক্লাস করতে হচ্ছে বিহারের ৭০ জন স্কুলপড়ুয়াকে। সে রাজ্যের বাঁকা জেলার অমরপুর ব্লকে রয়েছে মাঝগাঁও প্রাথমিক স্কুল। স্কুলে রয়েছে ৭০ জন পড়ুয়া। আছেন দু’জন শিক্ষক। গত কয়েক দিনের ভারী বৃষ্টিতে সেই স্কুলের শ্রেণিকক্ষগুলি জলমগ্ন অবস্থায় রয়েছে। তাই রাস্তায় বসেই পড়াশোনা করছে খুদে পড়ুয়ারা।

স্কুলের প্রধান শিক্ষক মনোজ কুমার পাসওয়ান জানিয়েছেন, ব্লক উন্নয়ন আধিকারিক (বিডিও)-কে পরিস্থিতির কথা সবিস্তারে জানানো হয়েছে। কিন্তু তাঁর অভিযোগ, তার পরেও স্থানীয় প্রশাসন কোনও পদক্ষেপ করেনি। প্রধান শিক্ষকের কথায়, “ক্লাসে জল জমে রয়েছে। নিরুপায় হয়ে আমরা পড়ুয়াদের স্কুলের সামনের রাস্তাতে বসিয়েই পড়াশোনা করাচ্ছি।” কিন্তু এতে যে বিপদ হতে পারে, সে কথাও স্বীকার করে নিচ্ছেন তিনি। ব্যস্ত রাস্তায় প্রতি মুহূর্তে গাড়ি চলাচল করে। সে ক্ষেত্রে পড়ুয়াদের নিরাপত্তা নিয়ে চিন্তিত তাদের অভিভাবকেরাও।

প্রধান শিক্ষক এ-ও জানান যে, ১৯৫০ সালে স্কুলটি তৈরি হওয়ার পর মূল স্কুল ভবনের কোনও সংস্থার হয়নি। এই বিষয়ে রাজ্যের শিক্ষা দফতরে চিঠি লিখেও কোনও সদুত্তর পাওয়া যায়নি বলে অভিযোগ তাঁর। স্কুলে জল জমার বিষয়টি স্বীকার করে নিয়ে বিডিও শিবনারায়ণ ঠাকুর বলেন, “মাঝগাঁও গ্রামের ওই স্কুলে জল জমে থাকার বিষয়ে রিপোর্ট পেয়েছি। ইতিমধ্যেই স্কুল ভবনের সংস্কার এবং জমে থাকা জল পাম্পের মাধ্যমে বার করার জন্য সংশ্লিষ্ট আধিকারিকদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সূত্র আনন্দবাজার