Home বাংলাদেশ সকালে বাবার লাশ দাফন শেষে এসএসসি পরীক্ষায় বসলেন সাথী 

সকালে বাবার লাশ দাফন শেষে এসএসসি পরীক্ষায় বসলেন সাথী 

152

সকালে বাবার লাশ দাফন শেষে এসএসসি পরীক্ষায় বসলেন সাথী

২২ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচর উপজেলার মুছা মিয়া উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে বাবার লাশ দাফন শেষেই গণিত পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে নুশরাত জাহান সাথী।

সে ছয়সূতী ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ের মানবিক বিভাগের এসএসসি পরীক্ষার্থী।উপজেলার ছয়সূতী ইউনিয়নের নাছিরাকান্দা গ্রামের মো. জাহাঙ্গীরের মেয়ে নুশরাত জাহান সাথী।

 

২১ সেপ্টেম্বর বুধবার সাথীর বাবা মো. জাহাঙ্গীর মিয়া৷ (৫০) হঠাৎ অসুস্থ হয়ে যায়। পরে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় মস্তিষ্কের রক্তক্ষরণে খিলক্ষেত এশিয়ান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। রাতেই সাথীর বাবা জাহাঙ্গীর মিয়ার মরদেহ ঢাকা থেকে গ্রামের বাড়িতে গ্রামে আনা হয়। মরদেহ বাড়িতে পৌঁছলে স্ত্রী, সন্তান ও আত্মীয় স্বজনদের কান্নায় আশপাশের এলাকায় এক হৃদয় বিদারক পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়।

বাবার নামাজে জানাজা শেষে এলাকার কবরস্থানে দাফন করা হয়। তারপরও নিজের ইচ্ছার বিরুদ্ধে আত্মীয় স্বজনের পীড়াপীড়িতে বাধ্য হয়ে গণিত পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পরীক্ষা কেন্দ্রে যায় সাথী। এসময় সাথীর সঙ্গে পরীক্ষা কেন্দ্রে যায় তার খালা। কেন্দ্রে বাবার শোকে বার বার জ্ঞান হারাচ্ছিলো সাথী।