Home বাংলাদেশ সেপটিক ট্যাঙ্ক থেকে কলেজছাত্রীর মরদেহ উদ্ধার, ঘাতক প্রেমিক গ্রেফতার

সেপটিক ট্যাঙ্ক থেকে কলেজছাত্রীর মরদেহ উদ্ধার, ঘাতক প্রেমিক গ্রেফতার

166

সেপটিক ট্যাঙ্ক থেকে কলেজছাত্রীর মরদেহ উদ্ধার, ঘাতক প্রেমিক গ্রেফতার

যশোরের শার্শায় একটি সেপটিক ট্যাংকের ভেতর থেকে নিখোঁজের ৫ দিন পর জেসমিন আক্তার পিঙ্কি নামের এক কলেজ শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আর, এ হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে আহসান কবির অংকুর নামে নিহত পিঙ্কির এক সহপাঠীকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব-৬।

১০ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার বিকেলে যশোরের শার্শা থানা পুলিশ বুরুজবাগান এলাকার একটি সেপটিক ট্যাংকের ভেতর থেকে মরদেহটি উদ্ধার করেন।

নিহত পিঙ্কি যশোর পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের ৪র্থ বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন। ৫ দিন নিখোঁজ থাকার পর নাভারন বুরুজবাগান এলাকা থেকে তারই সহপাঠী অঙ্কুরের বাসায় অভিযান চালিয়ে পিঙ্কির মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, প্রেমের সম্পর্কের সুবাদেই তাকে ওখানে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে তাকে ধর্ষণ ও হত্যা করে লাশ গুম করার জন্য সেপটিক ট্যাংকের ভেতরে লুকিয়ে রাখে ঘাতক।

কলেজ শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার ও তার সহপাঠীকে গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করে যশোর র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব-৬) এর কোম্পানি কমান্ডার লে. কমান্ডার এম নাজিউর রহমান।

করে লাশ গুমের ঘটনায় আহসান কবির অঙ্কুর নামের একজনকে আটক করা হয়েছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। জিজ্ঞাসাবাদ শেষ হলে এ ব্যাপারে বিস্তারিত জানানো হবে বলে জানান লে. কমান্ডার এম নাজিউর রহমান হত্যা।