Home বাংলাদেশ হত্যার পর ওয়ারড্রপে স্ত্রীর লাশ রেখে স্বামীর আত্মসমর্পণ 

হত্যার পর ওয়ারড্রপে স্ত্রীর লাশ রেখে স্বামীর আত্মসমর্পণ 

317

হত্যার পর ওয়ারড্রপে স্ত্রীর লাশ রেখে স্বামীর আত্মসমর্পণ

স্ত্রীকে হত্যা করে নিজের গায়ে আতর মাখিয়ে ওয়ারড্রপের ড্রয়ারে লাশ লুকিয়ে রাখার ১০ ঘণ্টা পর পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ করেছেন মনোয়ার হোসেন নামের এক ব্যক্তি দিনাজপুর শহরের ঘাসিপাড়ায়। ১৭ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার

ভোরের কোনো এক সময়ে স্ত্রী সুমাইয়া আক্তারকে (২৭) গলায় ওড়না পেঁচিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যার কথা স্বীকার করেছেন মনোয়ার। তবে হত্যার কারণ সম্পর্কে এখনও কিছু জানতে পারেনি পুলিশ।

জানা গেছে, গাজীপুর নিবাসী নিঃসন্তান স্ত্রীকে তালাক দিয়ে মাসখানেক আগে বীরগঞ্জের সুমাইয়া আক্তারের সাথে পারিবারিকভাবে বিয়ে হয় মনোয়ারের। দিনাজপুর সদরের ঘাসিপাড়া মহল্লার একটি বাসার ৪র্থ তলায় ভাড়া নিয়ে থাকতেন তারা।

১৭ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার রাত ৩টা থেকে ৪টার মধ্যে স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর মরদেহটি ওয়ারড্রপের ড্রয়ারে লুকিয়ে রাখেন মনোয়ার। পরে রাত ১০টার দিকে কোতয়ালী থানায় গিয়ে আত্মসমর্পণ করেন তিনি। রাত পৌনে ১১টার দিকে লাশ উদ্ধার ও সুরতহাল রিপোর্ট শেষে ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহটি এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ব্যাপারে ১৮ ফেব্রুয়ারি শনিবার মামলার প্রস্ততি নিচ্ছেন সুমাইয়া আক্তারের অভিভাবকরা মনোয়ারের দেয়া প্রাথমিক তথ্যের বরাতে পুলিশের (দিনাজপুর সদর সার্কেল) অতিরিক্ত সুপার শেখ মো. জিন্নাহ আল মামুন জানিয়েছেন।